এবার অসহায়দের ঔষধ নিয়ে ভাবনা দূর করছেন সাদ


গত তিনদিন যাবৎ জ্বর, বুক ব্যথায় ভুগছিলেন এক যুবক। করোনায় কর্মহীন হয়ে পড়ায় টাকা পয়সার সংকটে পড়ে ডাক্তারও দেখাতে পারছিলেন না, না পারছিলেন ঔষধ কিনে খেতে। তাই নিয়ে দুশ্চিন্তা ভুগছিলেন তিনি। পরে শুনলেন গ্রামে যুবকদের উদ্যোগে ক্যাম্পেইন করে অসহায়দের বিনামূল্যে ঔষধ বিতরণ করা হচ্ছে। তার খবর পেয়ে তিনি ছুটে আসলেন সেই স্থানে। পেলেন চিকিৎসকের পরামর্শে দেয়া ঔষধ বিনামূল্যে।

সাারাদেশে অসহায় শিক্ষার্থীসহ কর্মহীন মানুষদের খাদ্য সহায়তার পাশাপাশি এবার নিজের গ্রামে ঔষধ বিতরণ শুরু করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র সংসদের স্বাধীনতা সংগ্রাম ও মুক্তিযোদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক সাদ বিন কাদের চৌধুরী। পরশুরামের দক্ষিণ গুথুমা চাঁনগাজী দিঘীর পাড়ে বিনামূল্যে ঔষুধ বিতরণ করে অসহায় রোগীদের পাশে দাঁড়ালেন কেন্দ্রীয় এ ছাত্রলীগ নেতা।

স্থানীয় সূত্র জানায়, করোনাকালে সাদ গত কয়দিন ধরে নিজ এলাকার হতদরিদ্র মানুষের মাঝে খাদ্যসামগ্রী ও বিভিন্ন ধরনের নিত্যপ্রয়োজনীয় সবজি বিতরন করছেন। তারই ধারাবাহিতায় গুথুমা চাঁনগাজী দিঘীর পাড়ে একজন গ্রাম্য ডাক্তারের ব্যবস্থাপত্রের মাধ্যমে অস্বচ্চল রোগীদের বিনামূল্যে চিকিৎসাসেবা ও ঔষুধ বিতরণ করছে।

কার্যক্রমের বিষয়ে ছাত্রলীগের এ কেন্দ্রীয় নেতা বলেন, ঔষধের জন্য প্রায় কল আসত। কিছু মানুষ হিমশিম খাচ্ছেন ঔষধ ক্রয় করতে। তাদের সহযোগিতার জন্যই এ উদ্যোগ নিয়েছি।

তিনি বলেন, সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে একজন গ্রাম্য ডাক্তারের ব্যবস্থাপত্রের মাধ্যমে বিনামূল্যে ঔষধ প্রদান করা হচ্ছে। করোনা প্রাদুর্ভাব বন্ধ হওয়া পর্যন্ত এ কার্যক্রম প্রতি সপ্তাহে একদিন করে চলমান থাকবে।

আজ কার্যক্রমের প্রথম দিনে ১৫০ জন মানুষকে বিনামূল্যে চিকিৎসাসেবা ও ঔষুধ বিতরণ করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

 

মন্তব্যসমূহ

আপনার মূল্যবান মতামত প্রদান করুন

    কোনো মন্তব্য খুঁজে পাওয়া যায় নি

মন্তব্য করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।