জন্মাষ্টমী উপলক্ষ্যে ফেনীতে আলোচনা সভা ও সহায়তা প্রদান


সনাতন ধর্মের প্রবর্তক ও প্রাণপুরুষ শ্রীকৃষ্ণের জন্মদিন ‘জন্মাষ্টমী’ উপলক্ষ্যে ফেনীতে আলোচনা সভা ও বিশেষ প্রার্থনা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

মঙ্গলবার (১১ আগস্ট) বিকালে শহরের ট্রাংক রোডের শ্রীশ্রী জয়কালী মন্দিরে জেলা প্রশাসন ও ধর্ম মন্ত্রণালয়ের হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ টাস্ট্রের আয়োজনে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা প্রশাসক মোঃ ওয়াহিদুজজামান।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে শ্রীকৃষ্ণের জীবন ও কর্মের বিভিন্ন দিক তুলে ধরে জেলা প্রশাসক। তিনি বলেন, শ্রীকৃষ্ণ ছিলেন সকল দেবতাদের দেবতা। যেখানেই অন্যায়-অবিচার, নিপীড়ন, হানাহানি হয়েছে, সেখানেই শ্রীকৃষ্ণ আবির্ভুত হয়েছেন আপন মহিমায়।

তিনি বলেন, সকল ধর্মের মতবাদ একই। তাহল মানুষকে পরিশুদ্ধ করা।

মন্দির ভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রমের ফেনীর সহকারি পরিচালক মাসুদুল আলম মাসুদের সভাপতিত্বে সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন কেন্দ্রীয় পূজা পরিষদের সহ-সভাপতি অ্যাডভোকেট প্রিয়রঞ্জন দত্ত, জেলা পূজা উদাযপন পরিষদের সভাপতি রাজীব খগেশ দত্ত, ফেনী সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারন সম্পাদক শুসেন চন্দ্র শীল।

পৌর পূজা পরিষদের যুগ্ম সম্পাদক সাংবাদিক সুরঞ্জিত নাগের সঞ্চালনায় আরও উপস্থিত ছিলেন জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সহ-সভাপতি মাস্টার হীরালাল চক্রবর্তী, সাবেক সভাপতি অ্যাডভোকেট বিমল শীল, বর্তমান কমিটির যুগ্ম সম্পাদক বিপুল শর্মা, গণেশ ভৌমিক, সাংগঠনিক সম্পাদক নুপুর বণিক, পৌর পূজা পরিষদের সভাপতি রাখাল চন্দ্র দাস, সাবেক সভাপতি শান্তি চৌধুরী, বর্তমান কমিটির সাধারণ সম্পাদক সমর দেবনাথ, সাবেক সাধারণ সম্পাদক বিটুল সাহা প্রমুখ।

আলোচনা সভা শেষে ‘আগামীর পথচলা হোক মানবিকতা’ এ ভাবনাকে সামনে রেখে জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের পক্ষ হতে করোনা প্রাদুর্ভাবে সংকটে পড়া বিভিন্ন ধর্মালম্বী ৩শ অসহায় মানুষকে খাদ্য সহযোগিতা ও বস্ত্র প্রদান করা হয়। জেলা প্রশাসক মোঃ ওয়াহিদুজজামান ও অতিথিরা এসব বিতরণ করেন।

করোনা প্রাদুর্ভাবের কারণে এবার ফেনীতে জন্মাষ্টমী স্বাস্থ্যবিধি মেনে সীমিত পরিসরে জন্মাষ্টমী উদযাপন করা হয়।

মন্তব্যসমূহ

আপনার মূল্যবান মতামত প্রদান করুন

    কোনো মন্তব্য খুঁজে পাওয়া যায় নি

মন্তব্য করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।