ফেনীতে করোনা শনাক্তের চার মাস পূর্ণ



ফেনীতে মহামারী করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) শনাক্তের চতুর্থ মাস পূর্ণ হল আজ। গত ১৬ এপ্রিল জেলায় প্রথম করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্ত করার কথা জানিয়েছিল স্বাস্থ্য বিভাগ। সেই থেকে আজ রবিবার (১৬ আগস্ট) পর্যন্ত ফেনীতে মোট শনাক্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ৫১৯ জনে।

তবে আক্রান্তদের মধ্যে ১ হাজার ১৩০ জনই সুস্থ হয়েছেন। ফেনীতে সুস্থতার হার ক্রমেই বাড়ছে। গত কিছুদিন ধরে সুস্থতার ৬৬/৬৭ শতাংশ থাকলেও আজ তা বেড়ে দাঁড়িয়েছে প্রায় ৭৪ শতাংশ। অর্থাৎ আক্রান্তদের মধ্যে চার তৃতীয়াংশ রোগী সুস্থ হয়েছেন।

আর করোনা আক্রান্ত হয়ে জেলা মোট ৩৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। মৃত্যুর প্রায় ২ শতাংশ। মোট ৭ হাজার ৪০৪টি নমুনার পরীক্ষার করে উক্ত সংখ্যা শনাক্ত করা হয়েছে। অথ্যাৎ প্রতি ৪ নমুনার মধ্যে একজনের পজিটিভ এসেছে। শনাক্তের হার প্রায় ২০ শতাংশ।

ফেনীতে করোনা শনাক্তের প্রথম দুই মাসে শনাক্তের সংখ্যা সীমিত থাকলেও তৃতীয় ও চতুর্থ মাসে শনাক্তের সংখ্যা প্রায় ২০ গুন বেড়েছে। শনাক্তের প্রথম ৫ শতক ছাড়াতে সময় লেগেছে ৭৬দিন। পরের ৫শতক ছাড়িয়েছে মাত্র ২৬ দিনে। এর পরের ৫শতক অতিক্রম করেছে ৩৫ দিনে।

নোয়াখালী আবদুল মালেক উকিল মেডিকেল কলেজ পিসিআর ল্যাব হতে সর্বশেষ প্রকাশিত ফেনীর ৭৩টি নমুনা পরীক্ষায় নতুন করে আরও ১০ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এছাড়া করোনা আক্রান্ত হয়ে জেলায় আরও একজনের মৃত্যু হয়েছে। মোট মারা গেছেন মোট ৩৩ জন। আজ রবিবার (১৬ আগস্ট) জেলা স্বাস্থ্য বিভাগের অফিসিয়াল ফেইসবুক পেজে এসব তথ্য জানান হয়।

জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ জানায়, গতকাল শনিবার নোয়াখালীর আবদুল মালেক মেডিকেল কলেজ ল্যাবে ফেনীর ৭৩টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এর মধে ১০টি পজিটিভ এসেছে। নতুন শনাক্তকৃতদের মধ্যে ফেনী সদরে ৫ জন, দাগনভূঞা ৪ জন ও ছাগলনাইয়ায় ১ জন রয়েছে।

এরমধ্যে আরও ৫৩ জন রোগী সুস্থ হয়েছেন। এ নিয়ে এখন পর্যন্ত জেলায় মোট ১ হাজার ১৩০ জন করোনা আক্রান্ত রোগী সুস্থ হয়েছে বলে জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ জানিয়েছে।

স্বাস্থ্য বিভাগ প্রদত্ত তথ্যমতে, এ পর্যন্ত ফেনীতে শনাক্ত ১ হাজার ৫১৯ জন রোগীর মধ্যে সর্বোচ্চ শনাক্ত হয়েছে ফেনী সদরে ৫৪১ জন। শনাক্তের সংখ্যায় দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে দাগনভূঞা উপজেলা। এ উপজেলায় মোট শনাক্ত করা হয়েছে ৩২৭জন। এরপরে রয়েছে সোনাগাজীতে ২৩০জন, ছাগলনাইয়ায় ১৭৯জন, পরশুরামে ১২৭ জন ও ফুলগাজীতে ৯৫ জন। এছাড়া ফেনীর বাইরের ২২ জন রোগী রয়েছে।

অন্যদিকে করোনা আক্রান্ত হয়েছে সর্বোচ্চ মৃত্যু হয়েছে সোনাগাজী উপজেলায়। এ উপজেলায় করোনা আক্রান্ত হয়ে ১১জন মৃত্যুবরণ করেছেন। এরপরে ফেনী সদরে ৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। গতকাল শনিবার পর্যন্ত ফেনীতে ৭ হাজার ৭৪৩ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে।

মন্তব্যসমূহ

আপনার মূল্যবান মতামত প্রদান করুন

    কোনো মন্তব্য খুঁজে পাওয়া যায় নি

মন্তব্য করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।