কাদের মির্জা বিরোধী সমাবেশে যা বললেন বক্তারা


বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মীর্জার বিভিন্ন বক্তব্যের প্রতিবাদে সমাবেশ করছে দাগনভূঞা উপজেলা আওয়ামী লীগ। সোমবার (২২ ফেব্রুয়ারী) বিকালে দাগনভূঞা-কোম্পানীগঞ্জ সীমান্তের দক্ষিণ চাঁনপুর দুধমুখা সড়কের উপর এ প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি মাষ্টার কামাল উদ্দিনের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক জয়নাল আবেদিন মামুনের সঞ্চালনায় সমাবেশে বক্তব্য জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ন-সাধারণ সম্পাদক ও সোনাগাজী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান জহির উদ্দিন মাহমুদ লিপটন বলেন, আপনি প্রথম রাউন্ডের খেলায় মেতে উঠেছেন। আপনাকে সামনে আরো অনেক খেলা খেলতে হবে। ১৯৯৬ সাল থেকে ২০০১ সাল পর্যন্ত আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থাকাকালীন দলের বর্তমান সাধারণ সম্পাদক সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের কোম্পানীগঞ্জে ব্যাপক উন্নয়ন করেছেন। সেদিনও আপনি সকল উন্নয়ন কর্মকান্ডকে ধুলিৎসাত করেছেন।

কাদের মির্জাকে আওয়ামী লীগ থেকে বহিষ্কার ও বিচার দাবি জানিয়েছেন ফেনী সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শুসেন চন্দ্র শীল। তিনি বলেন, তিনি দলের নাম ভাঙ্গিয়ে সব ধরণের অপকর্ম করছেন। ফেনীকে নিয়ে কথা বললে আপনাকে আর ছাড় দেয়া হবে না। তার বিরুদ্ধে অবস্থান নিতে কোম্পানীগঞ্জবাসীর প্রতি অনুরোধ জানান তিনি।

সমাবেশে ফেনী পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও পৌরসভার নব নির্বাচিত মেয়র নজরুল ইসলাম স্বপন মিয়াজী বলেন, কাদের মির্জার বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা না নিলে আগামীতে নতুন করে কর্মসূচি দিয়ে বসুরহাট পৌরসভাকে ঘেরাও করা হবে। একজন ব্যক্তির কারণে আমাদের বৃহত্তর নোয়াখালীর বদনাম হবে এটা আমরা মেনে নিতে পারি না।

জেলা যুবলীগের সভাপতি ও দাগনভূঞা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান দিদারুল কবির রতন বলেন, কাদের মির্জা জামাত বিএনপির সাথে আঁতাত করে শীর্ষ পর্যায়ের নেতাদের বিরুদ্ধে মিথ্যাচার করছেন। বসুরহাটে অপরাজনীতির মূল হোতা হলেন চাঁদাবাজ মির্জা। তিনি সন্ত্রাসী বাহিনী লালন করেন যার তালিকা আমার কাছে আছে। আমরা কিছুদিন তাকে শুধরানোর সময় দিলাম। না হলে নতুন কর্মসূচি নিয়ে বসুরহাট পৌরসভা ঘেরাও করবো।

জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক (ভারপ্রাপ্ত) রাজীব চৌধুরী বলেন, কাদের মির্জা হত্যার রাজনীতিতে লিপ্ত হয়েছেন। অপশক্তির কাছে মাথা নত করেছেন। তাই যখন যেভাবে ইচ্ছা চরম অন্যায়ভাবে বঙ্গবন্ধুর আদর্শিক মানুষদের অপমানের চেষ্টা করে কোন লাভ নেই। সাধারণ মানুষ জেনে গেছে আপনার অপচেষ্টা ও বাসনার কথা। সাধারণ মানুষই আপনাকে প্রতিহত করবে।

উল্লেখ্য, সোমবার কাদের মির্জা ও স্থানীয় আওয়ামী লীগ পাল্টাপাল্টি সমাবেশ আয়োজন করায় সেখানে ১৪৪ ধারা জারি করে উপজেলা প্রশাসন।

মন্তব্যসমূহ

আপনার মূল্যবান মতামত প্রদান করুন

    কোনো মন্তব্য খুঁজে পাওয়া যায় নি

মন্তব্য করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।