নির্যাতিত সেই গৃহবধূ অমিকে এসিড নিক্ষেপ


ফেনীর পরশুরামে সাতকুচিয়া গ্রামে শ্বশুর বাড়ির লোকদের দ্বারা নির্যাতিত খালেদা ইসলাম অমির শরীরে এসিড নিক্ষেপ করেছে সন্ত্রাসীরা। দুপুর সাড়ে ১২ টায় তার নিজ বাড়ি ফুলগাজী উপজেলার দরবারপুর ইউনিয়ন এর হাজী মোস্তফা বাড়িতে এই ঘটনা ঘটে। অমি জানায় তার শয়ন কক্ষের জানালা দিয়ে স্বামীর ফুফাত ভাই তারেক ও সহযোগী মিনার এসিড নিক্ষেপ করে এবং মটরসাইকেল যোগে পালিয়ে যায়। এতে তার হাতের বাহু, মুখ ও চোখে এসিড পড়ে।

জরুরী অবস্থায় অমিকে ফেনী জেনারেল হাসপাতালে আনা হলে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজের বার্ণ ইউনিটে স্থানান্তরে সিদ্ধান্ত দেয় কর্তব্যরত চিকিৎসক।

ফেনী জেনারেল হাসপাতালের আরএমও তৌহিদুল ইসলাম বাবু জানান, অমির হাতের বাহু, মুখ ও চোখে এসিড নিক্ষেপের ফলে জ্বলসে গেছে। তার চিকিৎসায় প্লাস্টিক সার্জারির প্রয়োজন হতে পারে।

এ ঘটনার তাৎক্ষনিক খবর পেয়ে হাসপাতালে গৃহবধূ অমিকে দেখতে আসেন ফেনী পুলিশ সুপার খোন্দকার নুরুন্নবী তিনি বলেন, এর আগে তাকে নির্যাতনের মামলায় ২ জনকে গ্রেপ্তার করেছি। তার পরিবারের সদস্যরা ফেনীতে অবস্থানকালে তারেক নামে এক ছেলে এ কাজ করেছে বলে জানা গেছে। এ ঘটনায় জড়িতদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

বিস্তারিত আগামীকালের দৈনিক ফেনীতে........

মন্তব্যসমূহ

আপনার মূল্যবান মতামত প্রদান করুন

    কোনো মন্তব্য খুঁজে পাওয়া যায় নি

মন্তব্য করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।