ফেনী পুলিশের ব্যতিক্রমী উদ্যোগ ''ফেনী পুলিশ যেমন চাই'


ফেনী পুলিশ যেমন চাই শিরোনামে ব্যতিক্রম উদ্যোগ নিয়েছে জেলা পুলিশ বিভাগ। সে প্রেক্ষিতে ফেনীর মানুষ কেমন পুলিশ চায় তার ওপর রচনা ও চিত্রাঙ্কণ প্রতিযোগিতার আয়োজন করেছে জেলা পুলিশ। চিত্রাঙ্কণে প্রাথমিক শিক্ষার্থী, রচনা প্রতিযোগিতায় অংশ নেবে ৬ষ্ঠ হতে দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী, উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষার্থী এবং জেলার যেকোনো ব্যক্তি। আজ বৃহস্পতিবার (১৮ নভেম্বর) বিকাল ৫টার দিকে নিজ সম্মেলন কক্ষে এসব তথ্য জানান পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আবদুল্লাহ আল মামুন।

গণমাধ্যমকর্মীদের সাথে সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন ফেনী-২ আসনের এমপি নিজাম উদ্দিন হাজারী। বিশেষ অতিথি ছিলেন উক্ত প্রতিযোগিতায় সহযোগী সংগঠন সালেহ উদ্দিন-হোসনে আরা চৌধুরী ফাউন্ডেশনের সদস্য-সচিব জালাল উদ্দিন আহমেদ চৌধুরী পাপ্পু।

জেলা পুলিশের এমন আয়োজন অভূতপূর্ব। এমন চিন্তা নিঃসন্দেহে সময়োপযোগী। তিনি বলেন, প্রয়োজনের তুলনায় স্বল্প জনবলে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষায় নিরলস পরিশ্রম পুলিশের সাধারণ বৈশিষ্ট্য। কাজের কারনেই সকল মানুষের কাছে পছন্দের হওয়া সম্ভব নয়। তথাপী মানুষের কাছাকাছি থাকতে জেলা পুলিশের এ আয়োজন কার্যকর ভূমিকা রাখবে।

পুলিশ সুপার বলেন, আয়োজনগুলোতে স্ব স্ব থানা কেন্দ্রীক সংশ্লিষ্টতা থাকবে। সকল বয়সী মানুষের সাথে থানার সহজ সম্পর্ক তৈরি হতে পারে। সাধরণের পুলিশভীতি কমবে। বাচ্চারা থানা চিনবে, সেকানে কি কি কাজ হয় তা তারা জানতে পারবে, অহেতুক ভীতি কমবে। এতে পুলিশের পক্ষে আইনি পরিসীমার মধ্যে মানুষকে সর্বোচ্চ সেবা দেওয়া সম্ভব হবে।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে পাপ্পু বলেন, মানুষের ইচ্ছার প্রাধান্য দিতে জেলা পুলিশের এ আয়োজন। প্রতিযোগিতার সফলতায় কাজ করার সুযোগ পেয়েছি। ফেনীর শিক্ষার্থীদের মেধা বিকাশে প্রতিযোগিতাটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে সক্ষম হবে।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বদরুল আলম জানান, প্রত্যেক উপজেলা হতে উভয় প্রতিযোগিতায় প্রথম তিনজন জেলা পর্যায়ে প্রতিযোগিতা করবে। ২৯ নভেম্বরের মধ্যে স্ব স্ব থানায় রচনা জমা দিতে হবে। ৩০ নভেম্বর স্ব স্ব থানা প্রাঙ্গণে চিত্রাঙ্কণ প্রতিযোগিতা হবে। ৬ ডিসেম্বর ফেনী মুক্ত দিবসে বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করা হবে।

মন্তব্যসমূহ

আপনার মূল্যবান মতামত প্রদান করুন

    কোনো মন্তব্য খুঁজে পাওয়া যায় নি

মন্তব্য করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।