দাগনভূঞা মা ও শিশু হাসপাতালের প্রতারণা


স্বাস্থ্য বিভাগের অনুমোদন ও নিবন্ধন ছাড়া হেপাটাইটিস বি এর টিকা প্রদান ও বিভিন্ন অনিয়ম পাওয়ায় দাগনভূঞায় মা ও শিশু হাসপাতালকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। আজ মঙ্গলবার (৪ অক্টোবর) পৌর শহরের ফাজিলের ঘাট রোডে হাসপাতালটিতে অভিযান চালান সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট গাজালা পারভীন রুহি।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, স্বাস্থ্য বিভাগের অনুমোদন ও নিবন্ধন ছাড়া হেপাটাইটিস বি এর টিকা কার্যক্রম পরিচালনা করছিল হাসপাতালটি। এছাড়া হাসপাতালের ফার্মেসীর হালনাগাদ রেজিস্ট্রেশন না থাকা, সনদ ছাড়া নন ডিপ্লোমাকে দিয়ে নার্সিংয়ের কাজ করা, ল্যাবের ফ্রিজে মেয়াদোত্তীর্ণ রি-এজেন্ট পাওয়ায় ও সাইফ উদ্দিন সাজু নামের এক ব্যক্তি ডিএমএ স্বল্প মেয়াদী কোর্স করে চিকিৎসক পরিচয় দিয়ে রোগী দেখা ও অপারেশন সহযোগিতা এবং নামের সাথে ডাক্তার ব্যবহার করায় এ জরিমানা করা হয়।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জানান, হাসপাতালটির পক্ষ থেকে প্রচারণা চালানো হচ্ছিল সরকারিভাবে হেপাটাইটিস বি টিকা দেওয়া হচ্ছে। যদিও স্বাস্থ্য বিভাগ হতে দাগনভূঞা মা ও শিশু হাসপাতালকে এ ধরণের কোন দায়িত্ব দেওয়া হয় নি। তাই মিথ্যা বিজ্ঞাপন দিয়ে ভোক্তাদের ঠকানো হচ্ছে বিধায় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন, ২০০৯ এর ৪৪ ধারা লংঘনের অপরাধে ২০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড অনাদায়ে তিন দিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ডের আদেশ দেওয়া হয়।

অভিযানে অংশ নেন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাঃ তৌহিদুল ইসলাম। তিনি জানান, ডিএমএ ডিগ্রি নিয়ে রোগী দেখা বা অপারেশনে সহযোগিতা করা অপরাধ।

মন্তব্যসমূহ

আপনার মূল্যবান মতামত প্রদান করুন

    কোনো মন্তব্য খুঁজে পাওয়া যায় নি

মন্তব্য করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।