জসিম হত্যার প্রতিবাদে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ


ফেনীতে খেলা দেখাকে কেন্দ্র করে কিশোর গ্যাংয়ের হামলায় নিহত জসিম হত্যার প্রতিবাদে ও আসামিদের গ্রেফতারের দাবীতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ করেছে পরিবারের স্বজনরা। আজ বৃহস্পতিবার (২২ ডিসেম্বর) সকালে ফেনী শহরের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার এলাকায় এ কর্মসূচিতে পালিত হয়। 

নিহত জসিমের বাবা মোঃ আবদুল খারজি মানববন্ধনে বলেন, আমার একমাত্র সন্তানকে ছুরি মেরে হত্যা করা হয়েছে। যারা তাকে হত্যা করেছে তাদের বিরুদ্ধে মামলা করেছি। কিন্তু আজো প্রধান আসামী ধরাছোঁয়ার বাইরে রয়ে গেছে। আমি আমার সন্তান হত্যার বিচার চাই। আসামীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই।

নিহত জসিমের মা রাহেনা বেগম বলেন, আমার ছেলে রিক্সার গ্যারেজে কাজ করতো। কারো সাথে তার কোন দিন ঝগড়া অথবা বিরোধ ছিল না। ৯ তারিখ রাতে কিশোর গ্যাংয়ের সদস্যদের সিগারেট খাওয়ায় বাধা দেয়ায় আমার ছেলেকে খুন করা হয়েছে।

গত ৬ ডিসেম্বর রাত ২টার দিকে ফেনী শহরের জেল রোডে এ ঘটনা ঘটে। ওই রাতে শহরের সহদেবপুর হতে বড় পর্দায় ব্রাজিল ও ক্রোশিয়ার খেলা দেখতে এসেছিল জসিমসহ কয়েকজন যুবক। খেলার গোল উদযাপন নিয়ে মাস্টারপাড়া ও সহদেবপুরের দুই কিশোর গ্যাংয়ের মধ্যে কথা কাটাকাটির ও ধাক্কাধাক্কির ঘটনা ঘটে। এ জের ধরে জসিমকে ছুরিকাঘাত করে প্রতিপক্ষের কিশোররা। চিকিৎসাধীন অবস্থায় গত ৯ ডিসেম্বর সকালের দিকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মারা যায় জসিম। এ ঘটনায় নিহত জসিম উদ্দিনের পিতা আবদুল খারজি বাদি হয়ে ৭ জনের নাম উল্লেখ করে ৬/৭ জনকে অজ্ঞাত আসামী করে ফেনী মডেল থানায় মামলা করেন।

মন্তব্যসমূহ

আপনার মূল্যবান মতামত প্রদান করুন

    কোনো মন্তব্য খুঁজে পাওয়া যায় নি

মন্তব্য করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।